BIOGRAPHY-RADHAKRISHNAN

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী

Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali : স্বাধীন ভারতের প্রথম উপরাষ্ট্রপতি এবং দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি হিসেবে ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)র নাম ভারতীয় ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা আছে। দর্শন বিষয়েও তার প্রচুর জ্ঞান ছিল, তিনি ভারতীয় দর্শনে পাশ্চাত্য চিন্তা শুরু করেছিলেন। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)ও একজন বিখ্যাত শিক্ষক ছিলেন, তাই তাঁর স্মরণে প্রতি বছর 5 সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস পালিত হয়।  বিংশ শতাব্দীর পণ্ডিতদের মধ্যে তার নাম শীর্ষে রয়েছে।  তিনি পাশ্চাত্য সভ্যতা বাদ দিয়ে দেশে হিন্দুত্ব ছড়িয়ে দিতে চেয়েছিলেন। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)  ভারত ও পশ্চিম উভয় দেশেই হিন্দু ধর্মের প্রসারের চেষ্টা করেছিলেন, তারা উভয় সভ্যতাকে একীভূত করতে চেয়েছিলেন। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) বিশ্বাস করতেন, শিক্ষকদের মনই দেশ সেরা হওয়া উচিত, কারণ দেশ গড়ার পেছনে তাদেরই সবচেয়ে বড় অবদান রয়েছে।

   স্বাধীন ভারতের প্রথম উপরাষ্ট্রপতি এবং দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali বা সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর আত্মজীবনী বা (Sarvepalli Radhakrishnan Jivani Bangla. A short biography of Sarvepalli Radhakrishnan. Sarvepalli Radhakrishnan Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ কে ছিলেন ? Who is Sarvepalli Radhakrishnan ?

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) স্বাধীন ভারতের প্রথম উপরাষ্ট্রপতি এবং দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি ছিলেন।

একাধারে রাজনীতিবিদ, দার্শনিক ও অধ্যাপক এই শান্ত মানুষটি ছাত্রজীবনে অতি মেধাবী ছিলেন। জীবনে কোন পরীক্ষায় দ্বিতীয় হননি। বিভিন্ন বৃত্তির মাধ্যমে সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) ছাত্র জীবন এগিয়ে চলে। ১৯০৫ সালে সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) মাদ্রাজ খ্রিস্টান কলেজ থেকে দর্শনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তার বিষয়টি ছিল ‘বেদান্ত দর্শনের বিমূর্ত পূর্বকল্পনা’(The Ethics of the Vedanta and its Metaphysical Presuppositions)।

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali

নাম (Name) সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)
জন্ম (Birthday) ৫ সেপ্টেম্বর ১৮৮৮ (5th September 1888)
জন্মস্থান (Birthplace) তামিনাড়ু, ব্রিটিশ ভারত
পিতামাতা (Parents) সীতাম্মা, সর্বপল্লী বীরস্বামী
রাজনৈতিক দল স্বাধীন
পেশা রাজনীতিবিদ, দার্শনিক ,অধ্যাপক
ধর্ম হিন্দু
দাম্পত্য সঙ্গী শিবকামু (১৯০৪)
মৃত্যু (Death) ১৭ এপ্রিল ১৯৭৫ (17th April 1975)

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জন্ম ও পরিবার – Sarvepalli Radhakrishnan Birthday and Family :

ডাঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) 1888 সালের 5 সেপ্টেম্বর তামিলনাড়ুর একটি ছোট গ্রাম তিরুমনিতে একটি ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) পিতার নাম ছিল সর্বপল্লী বীরস্বামী, তিনি অবশ্যই দরিদ্র ছিলেন কিন্তু একজন বিদ্বান ব্রাহ্মণও ছিলেন। তার বাবা পুরো পরিবারের দায়িত্বে ছিলেন, যার কারণে রাধাকৃষ্ণান শৈশব থেকেই খুব একটা স্বস্তি পাননি।  রাধাকৃষ্ণান 16 বছর বয়সে তার দূরবর্তী চাচাতো ভাই শিবকামুকে বিয়ে করেছিলেন।  যার থেকে তার ৫ মেয়ে ও ১ ছেলে ছিল। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) ছেলের নাম সর্বপল্লী গোপাল, যিনি ভারতের একজন মহান ইতিহাসবিদ ছিলেন।  রাধাকৃষ্ণনের স্ত্রী 1956 সালে মারা যান। ভারতীয় ক্রিকেট দলের মহান খেলোয়াড় ভিভি এস লক্ষ্মণ তার পরিবারের অন্তর্ভুক্ত।

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর শিক্ষা – Sarvepalli Radhakrishnan Education Life :

ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)র শৈশব কেটেছে তিরুমনি গ্রামে।  সেখান থেকেই তার লেখাপড়া শুরু হয়। আরও শিক্ষার জন্য, তার বাবা তাকে লুথারান মিশন স্কুল, তিরুপতি, একটি খ্রিস্টান মিশনারি প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করান। যেখানে সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) 1896 থেকে 1900 সাল পর্যন্ত থাকতেন।  1900 সালে, ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণান ভেলোরের কলেজ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করেন।  এরপর মাদ্রাজ খ্রিস্টান কলেজ, মাদ্রাজ থেকে পরবর্তী শিক্ষা শেষ করেন। তিনি প্রথম থেকেই মেধাবী ছাত্র ছিলেন। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) 1906 সালে দর্শনশাস্ত্রে M.A করেন। রাধাকৃষ্ণন সারাজীবন শিক্ষার ক্ষেত্রে বৃত্তি পেতে থাকেন।

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর শুরুর ক্যারিয়ার – Sarvepalli Radhakrishnan Starting Career :

1909 সালে, সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)কে মাদ্রাজ প্রেসিডেন্সি কলেজে দর্শনের শিক্ষক করা হয়। 1916 সালে, তিনি মাদ্রাজ রেসিডেন্সি কলেজে দর্শনের সহকারী অধ্যাপক হন। 1918 তিনি মহীশূর বিশ্ববিদ্যালয় দ্বারা দর্শনের অধ্যাপক নির্বাচিত হন।  এরপর ইংল্যান্ডের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ভারতীয় দর্শনের শিক্ষক হন।  ডক্টর রাধাকৃষ্ণন শিক্ষাকে প্রথম গুরুত্ব দেন। এই কারণেই তিনি এমন একজন জ্ঞানী পণ্ডিত ছিলেন।  শিক্ষার প্রতি ঝোঁক তাকে একটি শক্তিশালী ব্যক্তিত্ব দিয়েছিল। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) সবসময় নতুন কিছু শেখার জন্য আগ্রহী ছিলেন।  যে কলেজ থেকে তিনি এমএ করেছিলেন সেই কলেজের উপাচার্য করা হয়েছিল। কিন্তু ডক্টর সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) এক বছরের মধ্যে তা ত্যাগ করেন এবং বেনারস বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হন। এই সময়ে তিনি দর্শনের উপর অনেক বইও লিখতেন।

 ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) বিবেকানন্দ এবং বীর সাভারকরকে তার আদর্শ বলে মনে করতেন। তাদের নিয়ে গভীর অধ্যয়নের গাড়ি রেখেছিলেন। ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) তাঁর প্রবন্ধ ও বক্তৃতার মাধ্যমে সমগ্র বিশ্বকে ভারতীয় দর্শনের সাথে পরিচিত করার চেষ্টা করেছিলেন। ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) বহুমাত্রিক প্রতিভার সমৃদ্ধ পাশাপাশি দেশের সংস্কৃতিকে ভালোবাসতেন এমন একজন ব্যক্তি ছিলেন।

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর রাজনীতিতে প্রবেশ – Sarvepalli Radhakrishnan Entered Politics :

ভারত যখন স্বাধীনতা লাভ করে, জওহরলাল নেহেরু সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)কে সোভিয়েত ইউনিয়নের সাথে বিশেষ রাষ্ট্রদূত হিসাবে কূটনৈতিক কাজগুলি সম্পন্ন করার জন্য অনুরোধ করেন। নেহরুজির কথা মেনে নিয়ে ডক্টর রাধাকৃষ্ণান 1947 থেকে 1949 সাল পর্যন্ত গণপরিষদের সদস্য হিসেবে কাজ করেছিলেন।  সংসদে সবাই তার কাজ ও আচরণের ভূয়সী প্রশংসা করেন। সফল শিক্ষাজীবনের পর তিনি রাজনীতিতে প্রবেশ করেন।

 সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) 13 মে 1952 থেকে 13 মে 1962 পর্যন্ত দেশের উপ-রাষ্ট্রপতি ছিলেন। তিনি 13 মে 1962 সালে ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন। রাজেন্দ্র প্রসাদের তুলনায় তার কার্যকাল বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল, কারণ একদিকে চীন ও পাকিস্তানের সাথে ভারতের যুদ্ধ হয়েছিল, যেখানে ভারতকে চীনের কাছে পরাজয় বরণ করতে হয়েছিল। অন্যদিকে দুই প্রধানমন্ত্রীর মৃত্যুও ঘটেছে তার আমলে।  সাহাবীদের কাজের প্রতি সম্মান বেশি ছিল, তাদের সঙ্গে বিবাদ কম।

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর অ্যাওয়ার্ডস – Sarvepalli Radhakrishnan Awards :

শিক্ষা ও রাজনীতিতে অসামান্য অবদানের জন্য ড. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)কে 1954 সালে সর্বোচ্চ সম্মান “ভারত রত্ন” প্রদান করা হয়।

 1962 সাল থেকে, সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) জির সম্মানে, 5 ই সেপ্টেম্বর তার জন্মদিনটিকে শিক্ষক দিবস হিসাবে উদযাপন করার ঘোষণা করা হয়েছিল।

 1962 সালে, ডক্টর রাধাকৃষ্ণনকে “ব্রিটিশ একাডেমী” এর সদস্য করা হয়।

 পোপ জন পল তাকে “গোল্ডেন স্পার” উপহার দেন।

 তিনি ইংল্যান্ড সরকার কর্তৃক “অর্ডার অফ মেরিট” সম্মান লাভ করেন।

 ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) ভারতীয় দর্শন ও ধর্মের উপর অনেক বই লিখেছেন যেমন “গৌতম বুদ্ধ: জীবন ও দর্শন”, “ধর্ম ও সমাজ”, “ভারত এবং বিশ্ব” ইত্যাদি।  তিনি প্রায়ই ইংরেজিতে বই লিখতেন।

 1967 সালের প্রজাতন্ত্র দিবসে, ডক্টর রাধাকৃষ্ণন, দেশের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন যে তিনি এখন কোনও অধিবেশনের জন্য রাষ্ট্রপতি হতে চান না এবং এটিই রাষ্ট্রপতি হিসাবে তাঁর শেষ ভাষণ।

 

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর মৃত্যু – Sarvepalli Radhakrishnan Death :

ডাঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan) দীর্ঘ অসুস্থতার পর 17 এপ্রিল 1975 সালে মারা যান। শিক্ষাক্ষেত্রে তার অবদান চিরস্মরণীয়। তাই ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস পালনের মাধ্যমে ডক্টর রাধাকৃষ্ণনের প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করা হয়। এই দিনে অবদানের জন্য দেশের বিশিষ্ট ও অসামান্য শিক্ষকদের পুরস্কার দেওয়া হয়। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (Sarvepalli Radhakrishnan)কে মরণোত্তর মার্কিন সরকার 1975 সালে টেম্পলটন পুরস্কারে ভূষিত করেছিল, যা ধর্মের ক্ষেত্রে উন্নতির জন্য দেওয়া হয়।  তিনিই প্রথম অ-খ্রিস্টান ব্যক্তি যিনি এই পুরস্কার লাভ করেন।

 

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali FAQ :

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ কে ছিলেন ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ ভারতের দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি ছিলেন ।

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জন্ম কোথায় হয় ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জন্ম হয় তামিনাড়ুতে ।

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জন্ম কবে হয় ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জন্ম হয় ৫ সেপ্টেম্বর ১৮৮৮ সালে ।

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর পিতার নাম কী ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর পিতার নাম সর্বপল্লী বীরস্বামী ।

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর মাতার নাম কী ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর মাতার নাম সীতাম্মা ।

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর স্ত্রীর নাম কী ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর স্ত্রীর নাম শিবকামু ।

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ কবে ব্রিটিশ একাডেমির সদস্য হোন ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ ১৯৬২ সালে ব্রিটিশ একাডেমির সদস্য হোন ।

  1. সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ কবে মারা যান ?

Ans: সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ ১৭ এপ্রিল ১৯৭৫ সালে মারা যান । 

সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali

  আপনাদের সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে  এই ” সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাতে পারেন। আশা করি সকলে এই সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণ এর জীবনী – Sarvepalli Radhakrishnan Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবেন। এই ভাবেই kamaleshforeducation.in ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করুন এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুুুুুুুুুুুলুন , ধন্যবাদ।

 

©kamaleshforeducation.in(2023)

 

 

 

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *