PRESS INFORMATION BUREAU

Prime Minister’s Office

বর্ষীয়ান রাজনীতিজ্ঞ শ্রী এল কে আডবাণীকে ভারতরত্ন পুরস্কারে সম্মানিত করার কথা ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী

Posted Date:- Feb 03, 2024
নতুন দিল্লি, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
ভারতরত্ন পুরস্কারে সম্মানিত হচ্ছেন বর্ষীয়ান নেতা শ্রী লালকৃষ্ণ আডবাণী। আজ একথা সংবাদ মাধ্যমে এক বার্তায় ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী।
সরকারি এই সিদ্ধান্ত সম্পর্কে তিনি আজ স্বয়ং অবহিত করেন শ্রী আডবাণীকে। দেশবাসীর পক্ষ থেকে এজন্য তাঁকে অভিনন্দিতও করেন শ্রী নরেন্দ্র মোদী।
সমাজ মাধ্যমের ঐ বার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন:
“শ্রী এল কে আডবাণীজিকে ভারতরত্ন পুরস্কারে সম্মানিত করার কথা ঘোষণা করতে পেরে আমি আনন্দিত। এপ্রসঙ্গে আমি তাঁর সঙ্গে কথা বলেছি এবং তাঁর এই নতুন সম্মানের জন্য আমি তাঁকে অভিনন্দিতও করেছি। আডবাণীজি হলেন সর্বজন শ্রদ্ধেয় এমনই এক রাজনীতিজ্ঞ দেশের উন্নয়নে যাঁর অবদান বরাবরই এক বিশেষ স্মারক হয়ে থাকবে। তাঁর কর্মজীবন শুরু হয়েছিল মাটির কাছাকাছি থাকা মানুষদের জন্য। পরে, উপপ্রধানমন্ত্রী রূপেও তিনি দেশকে সেবা করে গেছেন। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হিসেবেও তাঁর ভূমিকা বিশেষ স্বাতন্ত্র্যের দাবি রাখে। সংসদে প্রদত্ত তাঁর ভাষণ ছিলো সর্বদাই অনুসরণযোগ্য যার মধ্যে ফুটে উঠতো তাঁর গভীর দর্শন ও চিন্তা-ভাবনা।
জনজীবনে বহু দশক ধরেই কাজ করেছেন আডবাণীজি। তাঁর প্রতিটি কাজকর্মে ছিল অবিচল কর্মনিষ্ঠা, সার্বিক স্বচ্ছতা ও সততা। রাজনৈতিক মতাদর্শের ক্ষেত্রে এক বিশেষ মান অনুসরণ করে চলতেন তিনি। জাতীয় ঐক্য এবং সাংস্কৃতিক পুনর্জাগরণের ক্ষেত্রে তাঁর প্রচেষ্টা ছিল অনবদ্য ও অতুলনীয়। তাঁকে ভারতরত্ন পুরস্কারে সম্মানিত করার সিদ্ধান্ত আমার কাছে এক বিশেষ আবেগময় মুহূর্ত বলে আমি মনে করি। আমি অসংখ্যবার তাঁর সঙ্গে আলোচনা ও আলাপচারিতার সুযোগ লাভ করে এসেছি এবং অনেক বিষয়ে তাঁর কাছে আমি শিক্ষালাভ করেছি, যা ছিল আমার কাছে এক বিশেষ ও দুর্লভ সুযোগ। “
PG/SKD/AS
Release Id :-2002352
 

Ministry of Health and Family Welfare

স্বাস্থ্য পরিকাঠামোয় পরিবর্তনের হাল হকিকত
মেরা অসপাতাল অ্যাপ-এর সঙ্গে জেলা হাসপাতালগুলির সংযোগসাধন
Posted Date:- Feb 02, 2024
নতুন দিল্লি, ০২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনের আওতায় সরকার জেলা হাসপাতালগুলিকে আরও উন্নত করে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে। জেলা হাসপাতালের কাজ ও পরিষেবার মানোন্নয়ন ঘটাতে সুসমন্বিত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এসংক্রান্ত কয়েকটি প্রয়াস নীচে বলা হল :
• জাতীয় স্বাস্থ্য মিশন ছাড়াও আয়ুষ্মান ভারত স্বাস্থ্যকেন্দ্র (বর্তমানে এর নাম আয়ুষ্মান আরোগ্য মন্দির), পঞ্চদশ অর্থ কমিশনের এমার্জেন্সি কোভিড রেসপন্স প্যাকেজ (ইসিআরপি) ১ ও ২, প্রধানমন্ত্রী আয়ুষ্মান ভারত স্বাস্থ্য পরিকাঠামো মিশন (পিএম-এবিএইচআইএম)-এর পরিকাঠামো আরও মজবুত করে তোলা হচ্ছে।
• জেলা হাসপাতালগুলিতে নার্স, এএনএম, প্যারা মেডিকেল কর্মীদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। মেডিকেল অফিসারদের জন্য চালু হচ্ছে ডিপ্লোমেট ন্যাশনাল বোর্ড (ডিএনবি)/সিপিএস পাঠক্রম।
• সরকার ‘মেরা অসপাতাল’ অ্যাপকে জেলা হাসপাতালগুলির সঙ্গে সংযুক্ত করেছে। এই অ্যাপে রোগীদের প্রতিক্রিয়া জানানো যায়। জনস্বাস্থ্য পরিষেবাকে নিরাপদ, রোগীকেন্দ্রিক এবং উচ্চমানের করে তুলতে জাতীয় গুণগত নিশ্চয়তা মান সংক্রান্ত শংসাপত্র (National Quality Assurance Standards (NQAS)) অর্জনের উপর জোর দেওয়া হচ্ছে।
• জেলা হাসপাতালগুলির মূল্যায়ন নির্ভর করে ডেটা রেকর্ডিং ও রিপোর্টিং সিস্টেমের উপর। এই প্রক্রিয়া যাতে পক্ষপাতহীন হয় সেজন্য স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা ও তথ্য পদ্ধতিকে (এইচএমআইএস) মজবুত করে তোলা হচ্ছে।
• সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসারত রোগীরা যাতে অত্যাবশ্যক ওষুধ সহজে পান এবং তাদের শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষার খরচ যাতে কমে সেজন্য সরকার জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনের আওতায় বিনামূল্যে ওষুধ পরিষেবা এবং বিনামূল্যে শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষার ব্যবস্থা চালু করেছে।
• বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ সহজে পেতে ই-সঞ্জিবনীর মতো টেলি-পরামর্শদান প্ল্যাটফর্ম গড়ে তোলা হয়েছে।
জেলা হাসপাতালগুলির মূল্যায়নের জন্য স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা ও তথ্য পদ্ধতির (এইচএমআইএস) ডেটা ব্যবহার করা হয়। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রক এবং নীতি আয়োগ যৌথভাবে এক্ষেত্রে ১৭টি মাপকাঠি স্থির করেছে। পরবর্তী ধাপে প্রায় ১০ শতাংশ জেলা হাসপাতালের ক্ষেত্রে এইচএমআইএস ডেটার সঙ্গে বাস্তব তথ্য মিলিয়ে দেখা হয়।
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডঃ ভারতী প্রবীণ পাওয়ার আজ লোকসভায় এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে এই খবর জানিয়েছেন।
PG/SD/SKD
Release Id :-2001951
 

 

©kamaleshforeducation.in(2023)

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

                                          © kamaleshforeducation.in(2023)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *